NEWS AND INSIGHTS

সংবাদ এবং ইনসাইটস

বহিরাগতদের প্রায়ই একটি অন্তর্দৃষ্টি থাকে যা ভেতরের মানুষদের থাকে না।   ব্যাপারটি খুবই সোজাঃ আপনি যদি জানতে চান কোন জিনিসটি বিশ্বে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে, তাহলে খবরাখবর রাখা চালু রাখুন!



২৪ ১১

আইপিডিসি’র সহযোগিতায় বণিক বার্তা আয়োজিত ‘বাংলাদেশে সাপ্লাই চেইন ব্যবস্থাপনার প্রতিকূলতা ও করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর সহযোগিতায় দৈনিক বণিক বার্তা ‘বাংলাদেশে সাপ্লাই চেইন ব্যবস্থাপনার প্রতিকূলতা ও করণীয়’ শীর্ষক একটি গোলটেবিল বৈঠক আয়োজন করেছে। ২৪ নভেম্বর, ২০১৮ তারিখে রাজধানীর প্

বৈঠকে বক্তারা বাংলাদেশের বর্তমান সাপ্লাই চেইন ব্যবস্থাপনার সামগ্রিক অবস্থা, সাপ্লাই চেইনে সাপ্লায়ার এবং ডিস্ট্রিবিউটর হিসাবে কর্মরত ক্ষুদ্র ও মাঝারি প্রতিষ্ঠান সমূহের বিবিধ প্রতিবন্ধকতা, সাপ্লাই চেইন ইকোসিস্টেমের প্রয়োজনীয়তার মতো বিষয়গুলো নিয়ে মতবিনিময় করেন। এতে প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন হিসেবে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বৈঠকে অংশ নেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান ও বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি (বিআইডিএ)-এর এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান কাজী এম. আমিনুল ইসলাম।

পেনালিস্টদের মধ্যে ছিলেন আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও মুমিনুল ইসলাম; ডিএমডি ও হেড অব বিজনেস ফাইন্যান্স রিজওয়ান ডি শামস; বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর (ডিএমডি) ড. মো. লিয়াকত হোসেইনসহ স্থানীয় ও বহুজাতিক কো¤পানিসমূহের সাপ্লাই চেইন লিডারগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড-এর রাকীবুল আলম; মারিকো বাংলাদেশ লিমিটেড-এর হাবীবুর রহমান; বিএসআরএম স্টীলস-এর ইমতিয়াজ উদ্দীন চৌধুরী; লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড-এর আসগর আলী; পারফেটি ভেন মেলে’র শাহেদ লতিফ; বিকাশ লিমিটেড-এর মো. রাশেদুল ইসলাম; রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেড-এর মো. জিয়া উদ্দিন এবং নেসলে বাংলাদেশের ডিরেক্টর অব করপোরেট অ্যাফেয়ার্স ও বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সোসাইটি (বিএসসিএমএস)-এর প্রেসিডেন্ট নকীব খান।  

বৈঠকে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিআইবিএম-এর বিভাগের ডিরেক্টর অব রিসার্চ, ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কনসালটেন্সি প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জি (পিএইচডি) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ও সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান শিবলি রুবায়েত উল ইসলাম। এছাড়াও ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিনস করপোরেশন (আইবিএম)-এর ব্লকচেইন লিডার জিতান চন্দনানিসহ ক্যাটাইনা টেকনোলজিস-এর চিফ সল্যুশন্স অফিসার রাজিশ রজন; নাথান
অ্যাসোসিয়েটস-এর চ্যালেঞ্জ ফান্ড ম্যানেজার আরাফাত হোসেইন এবং ইউএনসিডিএফ-এর ফাইন্যান্সিয়্যাল ইনক্লুশন ইভালুয়েশন অ্যান্ড ইমপ্যাক্ট এক্সপার্ট অ্যানা ক্লিনচিক অ্যান্ড্রুস আলোচনায় অংশ নেন।     

বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মশিউর রহমান বলেন, “সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো এসএমই ঋণ। ক্ষুদ্র উৎপাদকরা শুরু থেকেই যদি প্রয়োজনীয় অর্থ সহায়তা পান, তাহলে তারা একটি নিয়মিত সাপ্লাই চেইন বজায় রাখতে পারবেন; যা ভবিষ্যতে আরও শক্তিশালী হবে। একটি উন্নত সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স প্রতিষ্ঠার জন্য অর্থায়নের পাশাপাশি প্রকল্প ব্যবস্থাপনা এবং দক্ষতা উন্নয়নও অত্যন্ত জরুরি”।    

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অর্থ প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান বলেন, “তরুণদের মাঝে সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের গুরুত্ব তুলে ধরতে পারলে, তা পুরো জাতির উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি (বিআইডিএ)-এর এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান কাজী এম. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘’পণ্য পরিবহন ও লজিস্টিক সংক্রান্ত সমস্যাগুলোও চিহ্নিত করা জরুরি। আমরা আশা করছি এই ধরনের উদ্যোগ সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট এর জন্য বড় সাফল্য বয়ে নিয়ে আসবে।‘’  

আলোচনায় আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, “আমরা এসএমই ফাইন্যান্সকে উৎসাহিত করলেও এখনও সমান্তরাল অর্থের উপরই নির্ভর করি। আমাদের একটি সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স ভিত্তিক শূন্য সমান্তরাল নগদ অর্থ প্রবাহ তৈরিতে সহযোগিতা করা উচিত, যা অবশ্যই ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের দক্ষতা নিশ্চিত করতে সক্ষম হবে”।

 

 


১৯

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম প্রাইভেট আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ১৪তম বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্যাপক সংখ্যক শেয়ার হোল্ডারগণের উপস্থিতিতে সম্প্রতি রাজধানীর গুলশান -১ এর স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টার ইজিএম সম্পন্

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম প্রাইভেট আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ১৪তম বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্যাপক সংখ্যক শেয়ার হোল্ডারগণের উপস্থিতিতে সম্প্রতি রাজধানীর গুলশান -১ এর স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টার ইজিএম সম্পন্ন হয়।

অন্যান্যদের মধ্যে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বোর্ড অব ডিরেক্টরগণ যারা বেশিরভাগ শেয়ারের প্রতিনিধিত্ব করে- ব্র্যাক, আগা খান ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ সরকার, আরএসএ ক্যাপিটাল। আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের এমডি এবং সিইও মমিনুল ইসলাম, কোম্পানি সেক্রেটারি সামিউল হাশিম এবং প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দও এ সভায় উপস্থিত ছিলেন।


৩১ ০৭

ওমেগা এক্সামের সাথে আইপিডিসি চুক্তি স্বাক্ষর

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, বাংলাদেশে প্রথম বারের মতো ডিজিটাল সাপ্লাই..

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, বাংলাদেশে প্রথম বারের মতো ডিজিটাল সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স প্ল্যাটফর্ম পাওয়ার্ড বাই ব্লকচেইন টেকনোলজি প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে ওমেগা এক্সিম লিমিটেড-এর সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। উভয় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম এবং ওমেগা এক্সিম লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. মাশরুর আলম এই চুক্তি স্বাক্ষর করেন। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিজওয়ান ডি শামস; হেড অব আইটি এন্ড বিজনেস ট্রান্সফরমেশন আলেয়া আর ইকবাল; এমএনসি এন্ড হাই ভ্যালু রিলেশনশিপস-এর ইন-চার্জ সোলাইমান সারোয়ার এবং ওমেগা এক্সিম লিমিটেড-এর ডিরেক্টর রেজওয়ান আলীসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।


৩০ ০৫

আইপিডিসি ও বিএসসিএমএস-এর উদ্যোগে ‘বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড এবং বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সোসাইটি (বিএসসিএমএস) যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড (বিএসসিইএ) ২০১৮ আয়োজন করতে যাচ্ছে।

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড এবং বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সোসাইটি (বিএসসিএমএস) যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড (বিএসসিইএ) ২০১৮ আয়োজন করতে যাচ্ছে। অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা প্রদানের লক্ষ্যে দ্যা ডেইলি স্টার-এর সহযোগিতায় আজ ৩০ মে, বুধবার, রাজধানীর ডেইলি স্টার সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়।

বিএসসিইএ ২০১৮ হলো বাংলাদেশের অভ্যন্তরে কার্যক্রম পরিচালনা করা ইন্ডাস্ট্রিগুলোতে সাপ্লাই চেইন নলেজ বিষয়ে অগ্রগতি ও প্রয়োগের ক্ষেত্রে অসাধারণ ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক অবদানের জন্য একটি সম্মানজনক স্বীকৃতি। অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের নলেজ পার্টনার থাকবে ইন্টারন্যাশনাল সাপ্লাই চেইন এডুকেশন অ্যালায়েন্স (আইএসসিইএ)। ২০১৭ সালে দেশের ম্যানুফ্যাকচারিং ও সার্ভিস অর্গ্যানাইজেশনের সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যারা উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছেন, তাদেরকেই এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। আইপিডিসি ও বিএসসিএমএস যৌথভাবে এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করবে। সাপ্লাই চেইন পেশাজীবী, তরুণ পেশাজীবী এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ২০১৭ সালে নিজেদের অর্জনগুলো সাবমিট করার মাধ্যমে সম্মানজনক এই অ্যাওয়ার্ডে অংশ নিতে পারবেন।

বিএসসিইএ ২০১৮ অ্যাওয়ার্ড ৭টি ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে প্রদান করা হবে। ক্যাটাগরিগুলো হলো কোলাবোরেটিভ সাপ্লাই চেইন; সাপ্লাই চেইন ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট; ম্যানুফ্যাকচারিং এক্সিলেন্স; সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স ম্যানেজমেন্ট; এক্সিলেন্স ইন লজিস্টিক্স, ডিস্ট্রিবিউশন, ট্রান্সপোর্টেশন এন্ড ওয়্যারহাউজ ম্যানেজমেন্ট; ইয়াং সাপ্লাই চেইন ট্যালেন্ট অব দ্যা ইয়ার এবং সাপ্লাই চেইন প্রফেশনাল অব দ্যা ইয়ার। সাপ্লাই চেইন এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’র জন্য সম্মানিত বিচারক প্যানেল ১৫টি সেরা অর্জন (৫টি ব্যক্তিগত, ৫টি স্থানীয় এবং ৫টি এমএনসি অর্গ্যানাইজেশন) বাছাই করবেন। অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীরা স্বীকৃতিস্বরূপ সম্মাননা স্মারক এবং সনদপত্র পাবেন। এছাড়াও তরুণ অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীরা পাবেন আইএসসিইএ সার্টিফিকেশনসহ সম্মাননা স্মারক এবং সনদপত্র। অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২১ জুলাই, ২০১৮ ইং তারিখে।

আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম, হেড অব করপোরেট কমিউনিকেশন মাহজাবীন ফেরদৌস, নেসলে বাংলাদেশের ডিরেক্টর অফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স ও বিএসসিএমএস-এর প্রেসিডেন্ট নাকিব খান, ইন্টারন্যাশনাল সাপ্লাই চেইন এডুকেশন অ্যালায়েন্স-এর এশিয়া অঞ্চলের সিইও এজাজুর রহমান এবং ডেইলি স্টারের সহযোগী সম্পাদক ব্রি. জে. (অব.) শহিদুল আনাম খান, এনডিসি, পিএসসি।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর এমডি সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, “কাজ, অভিজ্ঞতা এবং সম্পদের যথোপযুক্ত ব্যবহারের জন্য পারস্পরিক লাভজনক বন্ধুত্ব অত্যাবশ্যক। আইপিডিসি বিশ্বাস করে, সহযোগিতার অপর নাম হলো নতুন উদ্ভাবন এবং ইন্ডাস্ট্রির সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সেক্টরের সেরাটা বের করে আনার লক্ষ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য প্রথমবারের মতো এমন একটি উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।”

নেসলে বাংলাদেশের ডিরেক্টর অফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স বিএসসিএমএস-এর প্রেসিডেন্ট নাকিব খান বলেন, “ব্যবসার সাফল্য, জোর প্রতিযোগিতা এবং বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ- এসবই সাপ্লাই চেইনের কার্যকারিতার সাথে সম্পৃক্ত। বিএসসিইএ ২০১৮ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে কার্যক্রম পরিচালনা করা ইন্ডাস্ট্রিগুলোতে সাপ্লাই চেইন বিষয়ে অগ্রগতি ও প্রয়োগের ক্ষেত্রে অসাধারণ অবদানের স্বীকৃতি প্রদানের একটি বৃহৎ উদ্যোগ। এই উদ্যোগ আমাদের ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে উন্নীত হওয়ার স্বপ্ন পূরণসহ ‘ডেভেলপিং রেসপন্সিভনেস’ বিষয়ে ইতিবাচক অবদান রাখতে সক্ষম হবে।”


০৪ ০৫

আইপিডিসি ফাইন্যান্সে নতুন ডিএমডি নিয়োগ

বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স গত ১ এপ্রিল নতুন ডিএমডি হিসেবে রিজওয়ান দাউদ শামসকে নিয়োগ দিয়েছে।

এর আগে তিনি আইপিডিসিতে জিএম ও হেড অব বিজনেস ফাইন্যান্স অ্যান্ড স্পেশাল অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট পদে তিন বছর ধরে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০০৭ সালের ১ নভেম্বর সিনিয়র ম্যানেজার-করপোরেট ইনভেস্টমেন্ট পদে আইপিডিসিতে যোগ দেন। এর আগে জিএসপি ফাইন্যান্স কম্পানি, হাবিব ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।


০২ ০৫

রাজশাহীতে চার দিনব্যাপী আবাসন মেলা শুরু

রিয়েল এষ্টেট এন্ড ডেভেলপার্স এসোসিয়েশন (রেডা) রাজশাহীর আয়োজনে আবাসন মেলা শুরু হয়েছে আজ। সকালে নগর ভবন গ্রীন প্লাজায় আয়োজিত প্রধান অতিথি হিসেবে এই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

উদ্বোধনকালে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেয়র বলেন, রাজশাহীকে পর্যটন নগরী রূপে গড়ে তুলতে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। নগরীর উত্তরে বিসিক এলাকায় দৃষ্টি নন্দন ফুটপাত নির্মাণ, ঐতিহ্যবাহী মঠগুলোকে সংস্কার ও মঠপুকুরটিকে সংস্কার করা হচ্ছে। দক্ষিণে পদ্মা নদীর পাড়কে নান্দ্যনিক শোভায় সজ্জিতকরণ কাজ এগিয়ে চলেছে। পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে নদীর ধারের তালাইমারী পর্যন্ত বাঁধ সংস্কার, ফুটপাতসহ রাস্তা নির্মাণ, আলোকায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নসহ বৃহৎ পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের জিরো সয়েল প্রকল্পের আওতায় নগরীতে ব্যাপক বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে। ফলে রাজশাহী বায়ু দুষণরোধে বিশ্বের সেরা নগরীর স্বীকৃতি লাভ করেছে। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে দেশের প্রতিটি নগরীর ন্যায় এ নগরীকে এগিয়ে নিতে দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। ২০৫০ সালের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নগরীতে চার লেনের ৬০ ফিট প্রশস্থ রাস্তা নির্মাণ করা হবে।

ডেভেলপার কোম্পানিগুলোর প্রতি দৃষ্টি আর্কষন করে তিনি বলেন, বহুতল ভবন নির্মাণে ভুমিকম্প সহনীয় বিষয়টি নিশ্চিত করে বিল্ডিং নির্মাণের বিষয়টি চুড়ান্ত করতে হবে। বিল্ডিং কোড মেনে বাড়ী নির্মাণের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট গৃহ নির্মাতাকে এ বিষয়ে সচেতন হবার পরামর্শ প্রদান করেন মেয়র। প্রথম বারের মতো রাজশাহীতে এ ধরনের আয়োজন করায় আয়োজক প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

রিয়েল এষ্টেট এন্ড ডেভেলপার্স এসোসিয়েশন (রেডা) রাজশাহীর সভাপতি তৌফিকুর রহমান লাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান মনি। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেডার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান কাজী। আরো বক্তব্য রাখেন রেডার সাংগঠনিক সম্পাদক মেজবাউল বারী সওদাগর, সহ-সভাপতি ড: মোঃ ফজলুল করিম, সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ঈশা।

২-৫মে চার দিন ব্যাপি এই মেলায় রহমান ডেভেলপার, জি-এলিভেটর, পারফেক্ট লিভিং, আদদ্বীন প্রপাটিজ, আমানা হোমস, ক্রিষ্টাল, ড্রিম স্মিথ, আল আকসা, সুইট হোম, আল মানার স্টীল, ফিরোজা ইঞ্জিনিয়ার, সেভেন রিং, সওদাগর ডোর, ইউরো এলিভেটার, সরকার টাওয়ারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে।


৩০ ০৪

নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের ক্যাম্প শুরু

নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের ক্যাম্প শুরু।গত বছর মাশরাফি বিন মুর্তজার হাত ধরে যাত্রা শুরু করে নড়াইল জেলাভিত্তিক সামাজিক উন্নয়নমূলক সংগঠন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন।

বিভিন্ন প্রশংসনীয় কাজের মাধ্যমে সেই নড়াইল এক্সপ্রেস খবরের শিরোনাম হয়েছে অনেকবার। সম্প্রতি এই সংগঠনের সাথে চুক্তি করে আইপিডিসি ফিন্যান্স।


চুক্তির আওতায় নড়াইল অঞ্চলের ক্রিকেট, ফুটবল ও ভলিবল খেলায় পারদর্শী খেলোয়াড়দের বাছাই করে তাদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্প করার কথা ছিল। এতে খুব বেশি সময় ক্ষেপণ করেনি নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন। শুক্রবার (২৭ এপ্রিল) নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শুরু হয়েছে তিন ক্যাটাগরিতে বাছাইকৃত খেলোয়াড়দের ক্যাম্প।
ক্যাম্প শুরুর কার্যক্রমে উপস্থিত থেকে এর সাথে ছিলেন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের মেরুদণ্ড ও বাংলাদেশ জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। 

আরও জানতে


২৫ ০৪

বিএফপি-বি গ্র্যান্ট চুক্তি স্বাক্ষর

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, ন্যাথান অ্যাসোসিয়েটস লন্ডন লিমিটেড (ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট-এর একটি অনুমোদিত এজেন্ট)-এর সঙ্গে বিজনেস ফাইন্যান্স ফর দি পুওর ইন বাংলাদেশ (বিএফপি

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, ন্যাথান অ্যাসোসিয়েটস লন্ডন লিমিটেড (ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট-এর একটি অনুমোদিত এজেন্ট)-এর সঙ্গে বিজনেস ফাইন্যান্স ফর দি পুওর ইন বাংলাদেশ (বিএফপি-বি)` গ্র্যান্ট চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। রাজধানীর হোটেল দি ওয়েস্টিন ঢাকা’য় আইপিডিসি-এর প্রকল্প‘ অর্জন’-এর অধীনে ব্লক চেইন টেকনোলজির মাধ্যমে ডিজিটাল সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স প্ল্যাটফর্ম-এর উন্নয়নের জন্য এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।  

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম, ডিএফআইডি অনুমোদিত এজেন্ট ন্যাথান অ্যাসোসিয়েটস লন্ডন লিমিটেড-এর ডিরেক্টর বুদ্ধিকা সামারাসিঙ্গে, বিএফপি-বি-এর টিম লিডার ফয়সাল হুসাইন, বিএফপি-বি-এর চালেঞ্জ ফান্ড ম্যান্যাজার মোঃ আরাফাত হুসাইন, নেসলে বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ডিরেক্টর অব করপোরেট অ্যাফেয়ার্স ও বাংলাদেশ সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সোসাইটি-এর প্রেসিডেন্ট নকীব খান, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর হেড অব সেন্ট্রাল অপারেশন জাকির হুসাইন, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর হেড অব আইটি এন্ড বিজনেস ট্রান্সফরমেশন আলেয়া আর ইকবালসহ অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।




১৯ ০৪

বাদ পড়া তাসকিন-সৌম্যদের পাশে মাশরাফি

বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়ছেন ছয় ক্রিকেটার। বাদ পড়া ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক জানালেন, তাঁরা যেন আবারও ছন্দ ফিরে পান, সব সহায়তাই দলের সিনিয়র খেলোয়াড়েরা করবেন।

বিসিবির পরিচালনা পর্ষদের সভা শেষে আনুষ্ঠানিকভাবেই কাল জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়ছেন তাসকিন আহমেদ, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, ইমরুল কায়েস, মোসাদ্দেক হোসেন ও কামরুল ইসলাম। মাশরাফি বিন মুর্তজা আজ জানালেন, তাসকিন-সৌম্যরা যেন আবারও ফিরে আসেন, সব সহায়তাই তাঁরা করবেন।
বিসিবির চুক্তি থেকে একসঙ্গে ছয় ক্রিকেটারের বাদ পড়াটা একটু ব্যতিক্রমই। তাঁদের বাদ পড়ার ব্যাখ্যা হিসেবে বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান কাল বলেছেন, এই ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স চুক্তিতে রাখার জন্য যথেষ্ট নয়। আজ দুপুরে রাজধানীর এক হোটেলে আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসির সঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে একসঙ্গে ছয় ক্রিকেটারের বাদ পড়া নিয়ে মাশরাফির কাছে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়েছিল।
বিসিবির চুক্তিতে থাকা নিয়ে মাশরাফি প্রথমে নিজের ভাবনার কথাটাই বললেন, ‘প্রথমত, যত দিন ধরে খেলছি, বেতনের ভেতর আছি কি নেই, এসব নিয়ে ভাবিনি। আমার কাছে এটা কখনোই পরিষ্কার নয়। আমার সব সময়ই প্যাশন ছিল ক্রিকেট খেলা। ওই প্যাশন নিয়ে ক্রিকেট খেলছি।’ 
একজন খেলোয়াড়ের জীবনে বিসিবির চুক্তিতে থাকা, বেতনভুক্ত হওয়ার প্রভাব কতটা, সেটিও বললেন মাশরাফি, ‘বেতন একজন খেলোয়াড়ের জন্য অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। দেশের বেশির ভাগ খেলোয়াড় এসেছে মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে। পরিবারের ওপর বেতন বা তার খেলার বিরাট প্রভাব থাকে। তবে সিদ্ধান্তটা বোর্ডের। কজনকে বেতন দেবে না দেবে এটা তাদের সিদ্ধান্ত। একটা খেলোয়াড়ের জন্য বেতন (চুক্তিতে থাকা) গুরুত্বপূর্ণ। একই সময়ে তাকে ততটুকু আবেগ দিয়েও খেলতে হবে। আমার বিশ্বাস, সবাই সেভাবে খেলছে। পারফরম্যান্স সব সময়ই একই গ্রাফে চলে না। কারও কখনো ভালো যায়, কারও কখনো খারাপ। বেতনের বিষয়টা নির্ভর করে পারফরম্যান্সের ওপর, এটাও সত্য।’ 
বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়াটা একজন ক্রিকেটারের জন্য অবশ্যই বড় ধাক্কা। মাশরাফি জানালেন, বাদ পড়া ক্রিকেটাররা যেন এ ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারে তাঁরা সব সহযোগিতাই করবেন, ‘তারা বাংলাদেশ দলের সত্যিকারের ভবিষ্যৎ, তাদের সমর্থন করা আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব। আমার জায়গা থেকে আমি পিছপা হব না। যত প্রকার সমর্থন দেওয়ার তাদের দেব। জানি বাংলাদেশের এত বেশি বিকল্প খেলোয়াড় নেই। ধারাবাহিকতা বাড়িয়ে যদি তারা ফর্মে ফিরে আসে, লম্বা সময় ধরে তারা বাংলাদেশকে সেবা দিতে পারবে। একসময় সাকিব-তামিম বা আমরা এমনই ছিলাম। বলতে পারেন, ওই সময় প্রতিদ্বন্দ্বিতা এতটা ছিল না বলে আমরা টিকে গেছি। তাদের কাছে প্রত্যাশাটা অনেক। একটু খারাপ করলেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সোচ্চার হয়ে ওঠে। ক্রিকেট খেলাটা এখন অনেক কঠিন হয়ে গেছে। ছোটখাটো বিষয়ে অনেক বেশি সমালোচনা হয়। ২২-২৩ বছর বয়সে এত সমালোচনা নিয়ে ধারাবাহিক ভালো খেলা অনেক চ্যালেঞ্জিং। কারও বেড়ে ওঠাও তো এত পেশাদারির মধ্যে হয় না। আমরা সিনিয়ররা যারা আছি, তাদের সহযোগিতা করব। তাদেরও চেষ্টা করতে হবে, তারা যেন নিজেদের সেরা ফর্মে আসতে পারে।’
বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়া মানে জাতীয় দলের দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়া নয়। চুক্তির বাইরে থেকেও খেলা যায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সৌম্য, তাসকিন, সাব্বিরদের সামনে সে সুযোগ থাকছে। এই সুযোগ কাজে লাগাতে হলে তাঁদের সামনে একটা পথই খোলা, ধারাবাহিক ভালো খেলা।



০৯ ০৩

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘জয়ী’ আনল আইপিডিসি

আইপিডিসি ফাইন্যান্সের পণ্য ‘জয়ী’ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্সের এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম

নারী উদ্যোক্তাদের কম সুদে বিশেষ ঋণসুবিধা দিতে ‘জয়ী’ প্যাকেজ আনল আইপিডিসি ফাইন্যান্স। বছরজুড়ে নারী উদ্যোক্তারা ৮ শতাংশ সুদে এসএমই ঋণসুবিধা পাবেন। ‘ব্যাংকার-এসএমই নারী উদ্যোক্তা সমাবেশ ও পণ্যমেলা ২০১৮’তে আইপিডিসি ফাইন্যান্সের পণ্য ‘জয়ী’ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্সের এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম।

জয়ীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন আইপিডিসি ফাইন্যান্সের জিএম ও হেড অব করপোরেট বিজনেস রিজোয়ান ডি শামস, হেড অব ব্র্যান্ড অ্যান্ড করপোরেট কমিউনিকেশন মাহজাবীন ফেরদৌস, এমএমই ইনচার্জ মাহমুদুর রহমান শাওন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান, অ্যাসোসিয়েট অব ব্যাংকারস বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সৈয়দ মাহবুবুর রহমান।



১৯ ০২

বেসরকারি খাতের আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাথে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের চুক্তি হয়েছে।

এই চুক্তির ফলে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের রাইট শেয়ার ইস্যুয়েন্সের ক্ষেত্রে ‘ম্যানেজার টু দ্য ইস্যু’ হিসেবে কাজ করবে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

সম্প্রতি আইপিডিসির প্রধান কার্যালয়ে এই চুক্তি হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এই চুক্তির ফলে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের রাইট শেয়ার ইস্যুয়েন্সের ক্ষেত্রে ‘ম্যানেজার টু দ্য ইস্যু’ হিসেবে কাজ করবে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইপিডিসির ম্যানেজিং ডিরেক্টর-সিইও মমিনুল ইসলাম এবং এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের এফসিএস-ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আইপিডিসির চিফ ফাইন্যান্সিয়্যাল অফিসার বেনজীর আহমেদ, কোম্পানি সেক্রেটারি ও হেড অব লিগ্যাল অ্যাফেয়ার্স সামিউল হাশিম, এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের চেয়ারম্যান খাজা আরিফ আহমেদ এবং ডিরেক্টর ও চিফ অপারেটিং অফিসার মোহাম্মদ ফেরদৌস মাজিদ।


১৬ ০২

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, জাইকা’র (জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি) সহযোগিতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে ‘ফরেন ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন প্রজেক্ট’ (এফডিআইপিপি) শীর্ষক একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

এফডিআইপিপি প্রকল্পে আইপিডিসি ও বাংলাদেশ ব্যাংক

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, জাইকা’র (জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি) সহযোগিতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে ‘ফরেন ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন প্রজেক্ট’ (এফডিআইপিপি) শীর্ষক একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে চুক্তিটি স্বাক্ষর করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংক-এর অর্থায়নে এবং জাইকা’র সহযোগিতায় আইপিডিসি’র মাধ্যমে ইন্ডাস্ট্রি ও বিজনেস লোন স্কীমকে সুবিধা দেওয়াই হলো এই প্রকল্পের প্রাথমিক লক্ষ্য।

বাংলাদেশে জাপান কর্তৃক গৃহীত উদ্যোগ, বাংলাদেশ-জাপান যৌথ উদ্যোগ, জাপান ও অন্য কোন দেশের যৌথ উদ্যোগ, বাংলাদেশ ও অন্যান্য দেশের যৌথ উদ্যোগ এবং বাংলাদেশের যেসব উদ্যোগে জাপানের ব্যবসায়িক সংশ্লিষ্টতা আছে এমন সকল উদ্যোগ এ প্রকল্পের সুবিধা ভোগ করতে পারবে। এই স্কীমের অধীনে ১৯টি ব্যাংক এবং ৫টি নন-ব্যাংকিং ফাইন্যান্সিয়্যাল ইনস্টিটিউশন অর্থায়ন সুবিধা পাবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহাঃ রাজী হাসান, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আহমেদ জামাল, জাইকা বাংলাদেশ অফিসের চীফ রিপ্রেজেন্টেটিভ তাকাতোশি নিশিকাতা, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সিইও ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মমিনুল ইসলাম, ডিএমডি ও রিটেইল হেড এএফএম বরকতুল্লাহ, জিএম ও হেড অব কর্পোরেট বিজনেস রিজোয়ান ডি শামস, হেড অব ব্র্যান্ড এন্ড কর্পোরেট কমিউনিকেশন মাহজাবীন ফেরদৌস, এমএমই ইন-চার্জ মাহমুদুর রহমান শাওন, এফডিআইপিপি-এর জেনারেল ম্যানেজার ও প্রজেক্ট ডিরেক্টর মো. রেজাউল ইসলাম এবং পিএফআই-এর উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।



০২ ০১

মমিনুল ইসলাম তৃতীয়বারের মতো আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও মনোনিত

তৃতীয়বারের মতো আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড-এর এমডি এবং সিইও মনোনিত হয়েছেন মমিনুল ইসলাম। সম্প্রতি, প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের এক সভায় তাকে এই পদে আবারো মনোনিত করা হয়, যা পরবর্তীতে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক অনুমোদিত হয়।

 ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড বাংলাদেশের প্রথম প্রাইভেট আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশের আর্থিক খাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

মমিনুল ইসলাম ২০১২ সাল থেকে আইপিডিসিতে দুই দফায় ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে তিনি ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০০৬ সালে হেড অব অপারেশন্স হিসেবে আইপিডিসিতে যোগদান করেছিলেন। এর আগে তিনি অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংক-এ সাত বছর বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস-এ তিনি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, হংকং, ভারত, অ্যামেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে কাজ করেন।

মমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে আইপিডিসি বিগত বছরগুলোতে অভাবনীয় ব্যবসায়িক সাফল্য অর্জনের পাশাপাশি দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।