FAQ

১. IPDC মানবতা কি?

'IPDC মানবতা' একটি বিশেষ ডিপোজিট প্রোডাক্ট যার মাধ্যমে অসহায় পরিবার পাবে এক মাসের খাবার, আইপিডিসি ও আপনার সম্মিলিত অংশগ্রহণে। এক্ষেত্রে প্রতি লাখ টাকা ডিপোজিটে একটি ক্ষুধার্ত পরিবারের কাছে পৌঁছে যাবে এক মাসের জন্য ১৫০০ টাকার খাবার যার মধ্যে আপনার অবদান ৫০০ টাকা এবং আইপিডিসির অবদান ১০০০ টাকা। অর্থাৎ আপনার সহায়তার পরিমাণ তিনগুন হয়ে যাচ্ছে এই প্রয়াসের মাধ্যমে।

২. এই ক্যাম্পেইনের ক্ষেত্রে ডিপোজিটে মুনাফার হার কত?

এক বছরের জন্য ডিপোজিট করলে আপনি পাবেন ৬.৫% বার্ষিক মুনাফা।

৩. এই করোনা পরিস্থিতে আমি কিভাবে আইপিডিসিতে ডিপোজিট করতে পারি?

১. আইপিডিসি-র যে কোনো একাউন্টে আপনি অনলাইন ট্রান্সফার করতে পারেন ।
২. আপনি চাইলে আমরা করোনার জন্য প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করে আপনার কাছ থেকে A/C Payee চেক সংগ্রহ করবো।

৪. একাউন্ট ওপেনিং এর জন্য কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন এবং তা কিভাবে সংগ্রহ করা হবে?

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা এখন Email / WhatsApp এর মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সংগ্রহ করছি।  আমরা আপনার Email / WhatsApp এ আমাদের অ্যাকাউন্ট ওপেনিং ফরমটি পাঠিয়ে দিব। পূরণকৃত ফরম, আপনার ছবি, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র এবং অনলাইন ট্রান্সফারের information আমাদেরকে Email / WhatsApp করলেই আমরা আপনার অ্যাকাউন্ট ওপেন করে দিবো।

৫. ক্যাম্পেইনের জন্য ডিপোজিটের সময়সীমা কি হবে?

ক্যাম্পেইনটির অধীনে ১২ মাসের জন্য ডিপোজিট করা শ্রেয়। তবে আপনি চাইলে অন্য মেয়াদেও ডিপোজিট করতে পারেন। সেক্ষেত্রে খাদ্যের পরিমাণ আনুপাতিক হারে পরিবর্তিত হবে। অর্থাৎ, প্রতি লাখে আপনি যদি ৩ মাসের জন্য ডিপোজিট করেন তবে আমরা এক সপ্তাহের, ৬ মাসের জন্য করলে ১৫ দিনের এবং এক বছর বা তার অধিক মেয়াদের জন্য ডিপোজিট করলে এক মাসের খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে।

৬. যে কোনো ডিপোজিট প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেই কি এই অফারটি প্রযোজ্য?

-আইপিডিসি-র মেয়াদী ডিপোজিট প্রোডাক্টগুলোর ক্ষেত্রে এই অফারটি প্রযোজ্য।

৭. আমার অ্যাকাউন্ট নবায়ন করলে কি তা ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে বিবেচ্য হবে?

- নবায়নকৃত অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রেও তা ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে বিবেচ্য হবে ।

৮. এই ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণ করলে কি ডিপোজিটের মুনাফার হার হ্রাস পাচ্ছে ?

- জ্বি, এক্ষেত্রে ডিপোজিটের বার্ষিক মুনাফার হার লাখে মাত্র ৫০০ টাকা কম হচ্ছে, তবে এর মাধ্যমে আপনি একটি অসাধারণ মানবিক উদ্যোগে অবদান রাখার সুযোগ পাচ্ছেন। আপনার এই অবদানের সাথে আইপিডিসি দিচ্ছে দ্বিগুণ অর্থাৎ ১০০০ টাকা। নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন, আপনার অবদান তিন গুণ হয়ে যাচ্ছে এবং মোট ১৫০০ টাকার খাবার পাচ্ছে প্রতিটি অসহায় পরিবার। আইপিডিসি বাংলাদেশের সবচেয়ে শক্তিশালী ও স্বনামধন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি। আপনি নিশ্চয়ই জানেন যে, ব্র্যাক ও বাংলাদেশ সরকার এর প্রধান শেয়ারহোল্ডার। উল্লেখ্য, আপনি এই ক্যাম্পেইনে ৬.৫% হারে বার্ষিক মুনাফা পাচ্ছেন, যা প্রথম সারির ব্যাংকগুলোর সাথে তুলনা করলে অত্যন্ত আকর্ষণীয়। অর্থাৎ একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সুরক্ষার পাশাপাশি পাচ্ছেন একটি অনন্য মানবিক উদ্যোগে অংশগ্রহণের সুযোগ।

৯. আপনারা কিভাবে মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিবেন?

অসহায় পরিবারের কাছে এক মাসের খাবার পৌঁছে দেয়া হবে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন, সাজিদা ফাউন্ডেশন, জাগো ফাউন্ডেশন, বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন, আমাল ফাউন্ডেশনসহ অন্যান্য স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের সাহায্যে।

১০. আমার সুপারিশকৃত স্থানে কি খাবার পৌঁছে দেয়া সম্ভব ?

এই মুহূর্তে যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই সীমিত। স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানগুলো অনেক কষ্ট করে নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় ত্রাণ দিয়ে আসছে। আমরা স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আপনার মনোনীত স্থানে খাবার পৌঁছে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করতে পারি। পরিস্থিতি অনুযায়ী সম্ভব হলে অবশ্যই সাহায্য করবে।

১১. একটি পরিবারকে এক মাসের খাবার জন্য কি কি প্রদান করা হবে?

রমজান ও তার পরবর্তী সময়ে জন্য আমরা একেকটি পরিবারের জন্য ১৫০০ টাকা মূল্যের খাবার পৌঁছে দিবো। পণ্য তালিকা: চাল ১০ কেজি, ডাল ২ কেজি, খেজুর ১ কেজি, ছোলা ২ কেজি, লবণ ১ কেজি, মুড়ি ১/২ কেজি, তেল ১ লিটার, সাবান ইত্যাদি।

১২. কোনো প্রতিষ্ঠান কি এই ক্যাম্পেইনে ডিপোজিট করতে পারবে?

জ্বি, ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক উভয় প্রকার ডিপোজিটই এক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

১৩. আমার ডিপোজিটকৃত অর্থের পরিমাণ লাখ দ্বারা বিভাজ্য না হলে কি হবে?

আমরা মোট ডিপোজিটকৃত অর্থ থেকে আনুপাতিক হারে অসহায় মানুষদের কাছে খাবার পৌঁছে  দিবো।

 

১৪. আপনাদের অন্যান্য অফারগুলো কি এই  ক্যাম্পেইনের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য?​

এই মুহূর্তে আমরা অসহায় মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দেবার জন্য IPDC মানবতা ডিপোজিটের বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছি।